সাইবার অপরাধে ভুক্তভোগী মেয়েরা নিজেরাই বিপদ ডাকে

কর্মশালায় অতিথি ও আলোচকদের সঙ্গে অংশগ্রহণকারীরা

সাইবার অপরাধে ভুক্তভোগী মেয়েদের হয়রানির পেছনে তাদের অসচেতনতাই দায়ি। বেশিরভাগ ঘটনায় দেখা যায় তারা নিজেই নিজের বিপদ ডেকে আনে। একান্ত মুহূর্তের ব্যক্তিগত ছবি অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে। এসব ক্ষেত্রে শুধু প্রেমের সম্পর্ক নয়, স্বামী-স্ত্রীর বেলায়ও দেখা যায় ডিভোর্সের পর এসব ছবি কাল হয়ে দাঁড়ায়। সম্পর্ক যতো গভীরই হোক একান্ত মুহূর্তের ছবি তোলা এবং অন্যের সঙ্গে আদান-প্রদান করা থেকে বিরত থাকতে সবার প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

শনিবার (৬ জানুয়ারি ২০১৮) রাজধানীতে আয়োজিত এক কর্মশালায় এসব কথা বলেন ডিএমপির সাইবার নিরাপত্তা ও অপরাধ বিভাগের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ফাতেমা ইসলাম। বেলা ২টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত জাতীয় জাদুঘরে অনুষ্ঠিত হয় ‘চ্যাম্পিয়ন মিটআপ অ্যান্ড লিডারশিপ ট্রেনিং অন সাইবার ক্রাইম অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাওয়ারনেস’ কর্মশালা। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশন এটির আয়োজন করে।

আগামী ২৮ জানুয়ারি ২০১৮ (রোববার) পালিত হতে যাচ্ছে ইন্টারন্যাশনাল ডাটা প্রাইভেসি ডে (তথ্য সুরক্ষা দিবস)। দিবসটি উপলক্ষে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সাইবার সিকিউরিটি অ্যালায়েন্সের বৈশ্বিক সচেতনতামূলক কার্যক্রমের এ বছর অফিসিয়াল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সাইবার ক্রাইম অ্যাওয়ারনেস ফাউন্ডেশন। এ উপলক্ষে সাইবার সচেতনতায় নেতৃত্ব তৈরির উদ্দেশ্যে শনিবারের কর্মশালা আয়োজন করা হয়। এতে সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ, পুলিশ কর্মকর্তা, আইনজীবীসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে সাইবার সচেতনতাকর্মীরা অংশ নেন ।

কর্মশালায় বিষয়ভিত্তিক আলোচনায় অংশ নেন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞ মো. মেহেদী হাসান, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম, আয়োজক সংগঠনের আহ্বায়ক কাজী মুস্তাফিজ ও সদস্য সচিব আব্দুল্লাহ হাসান। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।