ফেসবুকে নতুন ত্রুটি

আবারও প্রাইভেসি লঙ্ঘন বিতর্কে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক। ফের ধরা পড়ল তার ত্রুটি। আর ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নিজেই সেকথা স্বীকার করে নিয়েছে। চলতি বছর মে মাসে একটি বাগ (‌প্রোগামিংয়ে ত্রুটি) এর কারণে এই প্লাটফর্মের ১ কোটি ৪০ লাখ ব্যবহারকারীর ডেটায় প্রাইভেসি লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে স্বীকার করেছে সামাজিক মাধ্যমটি।

বৃহস্পতিবার ফেসবুক জানিয়েছে, সম্প্রতি মে মাসে ফেসবুকে একটি ‘‌বাগ’ দেখা দেয়, যা কিনা প্রায় ‌১ কোটি ৪০ লাখ ব্যবহারকারীকে তাদের সবধরনের পোস্টকে ‘‌পাবলিক’ করতে বলে। অনেকেই ভাবেন এটা হয়তো ফেসবুকের নির্দেশ।

কিন্তু মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা জানিয়েছে, ফেসবুক কখনই এ ধরনের কোনও নির্দেশ দেয়নি। এটা আসলে একটি বাগ।

এই প্রসঙ্গে ফেসবুকের প্রধান প্রাইভেসি কর্মকর্তা এরিন এগান জানান, ‘আমরা সম্প্রতি একটি ‘‌বাগ’–এর খোঁজ পেয়েছি। যা কিনা নিজে থেকেই ফে‌‌সবুক ব্যবহারকারীদের তাঁদের পোস্টকে ‘‌পাবলিক’ করার নির্দেশ দিয়েছিল। মোট ১৪ মিলিয়ন ব্যবহারকারী এই নির্দেশ পেয়েছেন। গোটা ব্যাপারটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আমরা ওই ব্যবহারকারীদের এই বিষয়ে ইতিমধ্যে জানানো শুরু করেছি। তাঁরা যদি ওই সময়ে কোনও পোস্ট করে থাকেন, সেটিও আরেকবার দেখে নেওয়ার পরামর্শ দিতে শুরু করেছি।‌’‌‌‌‌‌

এরপরই টুইটারেও একটি পোস্ট করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানায়, ‘‌এই সময় কোনও ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত পোস্টকে পাবলিক করা হয়নি। বাগটি কেবলমাত্র আগের পোস্টের অডিয়েন্স সেটিং পরিবর্তন করার কথা বলেছিল। কিন্তু পোস্ট করার পর কিছু হয়নি।’‌

পাশাপাশি আরও বলা হয়েছে, এই বাগটির জন্য ফেসবুক পোস্টে কোনও পরিবর্তন হয়নি। তারা আরও জানিয়েছে, একটি নতুন ফিচার আনার সময় সামান্য কিছু ভুলের কারণেই এই বাগটি দেখা দিয়েছিল।‌‌